আল জাজিরা ইস্যুকে কাজে লাগাতে না পারায় বিএনপিকে ছেড়েই দিচ্ছে জামায়াত!

adminadmin
  প্রকাশিত হয়েছেঃ   11 February 2021

নিউজ ডেস্ক : দীর্ঘ ৮ বছর ধরে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে একাধিকবার জামায়াতে ইসলামীকে জোট থেকে বের করার গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল। এবার উল্টো বিএনপিকে ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জামায়াত। মূলত আল জাজিরা ইস্যুকে আন্দোলনে কাজে লাগাতে না পারায় বিএনপিকে ছেড়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটির কেন্দ্রীয় নেতারা। জামায়াতে ইসলামের চট্টগ্রাম শাখা এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

প্রতিকূল পরিস্থিতি বিবেচনায় বিএনপির সঙ্গে আর জোটে না থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটি। জানা যায়, এই সিদ্ধান্তের কথা দলটি আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করবে না। বিএনপির সঙ্গ ছাড়ার প্রাথমিক পদক্ষেপ হিসেবে তারা ২০ দলীয় জোটের কার্যক্রম থেকে নিষ্ক্রিয় থাকবে।

সূত্রগুলো বলছে, সম্প্রতি জামায়াতের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী পর্ষদ কেন্দ্রীয় মজলিশে শুরার বৈঠকে বিএনপির সঙ্গে আর না থাকার সিদ্ধান্ত হয়। দলের নির্বাহী পরিষদকে সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করতে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

জামায়াতের নীতিনির্ধারকেরা মনে করছেন, দেশে এখন কোনো আন্দোলন নেই। আল জাজিরা এতো বড় একটা সংবাদ প্রচার করলো, অথচ বিএনপি এটিকে ক্যাশ করে মাঠে নামা তো দূরের কথা, একটা সুন্দর সংবাদ সম্মেলনও করতে পারলো না। এতো দুর্বল রাজনৈতিক দলের সঙ্গে জোট করা বেমানান। ২০১৩-১৪ সালের দিকে জামায়াত একাই বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় পেট্রোল বোমা মেরেছিলো। বিএনপি শুধু আমাদের মাথায় কাঁঠাল ভেঙে খেয়েছে। তাই যাদের স্বভাব অন্যের মাথায় কাঁঠাল ভেঙে খাওয়া, তাদের সঙ্গে সম্পর্ক রাখার কোনো মানেই হয় না।

তবে, বিএনপির সঙ্গে না থাকার সিদ্ধান্তের বিষয়ে প্রশ্ন করলে সরাসরি কোনো উত্তর দেননি জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমির মিয়া গোলাম পরওয়ার। তিনি ১১ ফেব্রুয়ারি (বৃহস্পতিবার) গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সংগঠনে কত সিদ্ধান্তই হয়। জানানোর মতো কিছু হলে আমরা তা গণমাধ্যমকে জানাই। এ রকম কিছু হলে সময়মতো আমরা জানাবো।’

অবশ্য বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতা এবং দলের শুভাকাঙ্ক্ষী ও বুদ্ধিজীবীদের একটি অংশ অনেক দিন ধরে জামায়াতের সঙ্গ ছাড়তে বিএনপির নীতিনির্ধারকদের পরামর্শ দিয়ে আসছেন। জামায়াতের ব্যাপারে আন্তর্জাতিক মহলের অনেকের বিরূপ ধারণা আছে। কিন্তু ভোটের মাঠের নানা হিসাব-নিকাশে জামায়াতকে ছাড়েনি বিএনপি। এখন জামায়াতই উল্টো বিএনপিকে ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও বিএনপি-সমর্থক বুদ্ধিজীবীদের সংগঠন শত নাগরিক কমিটির এক নেতা বলেন, ‘জামায়াত বেরিয়ে গেলে খুশি হবো আমরা। এছাড়া বিএনপিরও উচিত হবে না আর জামায়াতকে জোটে যুক্ত রাখা। কারণ, জামায়াতকে সঙ্গে রাখা লাভজনক ব্যাপার নয় বরং দায় হয়ে গেছে।’

এ বিষয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘জামায়াত স্বাধীনতাবিরোধী দল। তাদের জোটে রাখাটা আমি কখনো পছন্দ করিনি, এ কথাটা সব সময় বলে আসছি। এখন যদি তারা বেরিয়ে যায়, সেটা তাদের ইচ্ছা। তবে আমি বলব, বিএনপি তাদের আশ্রয় দিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।’

আপনার মতামত লিখুন :