ছাত্রকে বেধড়ক মারধর করা সেই মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেফতার

admin2admin2
  প্রকাশিত হয়েছেঃ   11 March 2021

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে মো. ইয়াসিন ফরহাদ (৭) নামে এক মাদরাসা ছাত্রকে বেধড়ক মারধরের ঘটনায় থানায় মামলা করেছে তার পরিবার। ওই মামলায় অভিযুক্ত শিক্ষক হাফেজ ইয়াহিয়াকে গ্রেফতার দেখিয়েছে হাটহাজারী থানা পুলিশ।

হাটহাজারী থানার ডিউটি অফিসার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. হারুনুর রশিদ জানান, বুধবার (১০ মার্চ) বিকেলে শিশু শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনায় তার বাবা মোহাম্মদ জয়নাল বাদী হয়ে মারকাজুল কোরআন ইসলামি অ্যাকাডেমি মাদ্রাসার হিফজ বিভাগের শিক্ষক হাফেজ ইয়াহিয়ার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষককে বিকেলে হাটহাজারী পৌরসভার কামাল পাড়া পশু হাসপাতালের পাশ থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন হাটহাজারী থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মো. তৌহিদ। গ্রেফতার হাফেজ ইয়াহিয়া রাঙ্গুনিয়া উপজেলার সাফরভাটা গ্রামের মোহাম্মদ ইউনুসের ছেলে।

জানা যায়, পৌরসভার কামাল পাড়ায় মারকাজুল কুরআন ইসলামী একাডেমি মাদরাসায় মঙ্গলবার (৯ মার্চ) বিকাল ৫টার সময় ছাত্র ইয়াসিন ফরহাদের জন্য মা খাবার দিয়ে চলে যাওয়ার সময় সে তার মায়ের সাথে চলে যাওয়ার জন্য চেষ্টা করে। এ সময় ছাত্রের মা ছেলেকে যেতে নিষেধ করে। কিন্তু সে মাদরাসায় থাকতে নারাজ। তারপর মা চলে যাওয়ার সময় সে আবার দৌড় দিয়ে মায়ের আগে পালিয়ে যাওয়ার প্রাক্কালে অভিযুক্ত শিক্ষক ছাত্র ইয়াসিন ফরহাদকে ধরে মাদরাসায় নিয়ে বেদম প্রহার করে। এমন মারধরের দৃশ্য মোবাইল ক্যামেরায় ধারণ করে স্থানীয় জনৈক যুবক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিলে তা মুহূর্তেই ভাইরাল হয়।

ছাত্রকে বেধড়ক মারধর করা সেই মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেফতার

এরপর তড়িঘড়ি করে মাদরাসা শিক্ষক হাফেজ ইয়াহিয়াকে বুধবার (১০ মার্চ) ভোরেই স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করে মাদরাসা কর্তৃপক্ষ।

ভাইরাল হওয়া ভিডিও দেখে মঙ্গলবার রাত দেড়টার দিকে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল আমিন। এসময় অভিযুক্তর বিরুদ্ধে ছাত্রের পরিবার মামলা করতে আগ্রহ প্রকাশ না করায় মুচলেকা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

দেশের খবর

আপনার মতামত লিখুন :