logo
বৃহস্পতিবার , ৩০ জুন ২০২২ | ৩১শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. ক্যারিয়ার ভাবনা
  5. খেলা
  6. জাতীয়
  7. টেক নিউজ
  8. দেশের খবর
  9. প্রবাস
  10. ফিচার
  11. বিনোদন
  12. রাজনীতি
  13. লাইফস্টাইল
  14. সম্পাদকীয়
  15. সাফল্য

আন্তর্জাতিক বাজারের মূল্যবৃদ্ধি জনগণের ওপর চাপিয়ে দেব না: প্রধানমন্ত্রী

প্রতিবেদক
admin
জুন ৩০, ২০২২ ১০:০১ পূর্বাহ্ণ

আন্তর্জাতিক বাজারের মূল্যবৃদ্ধির চাপ জনগণের ওপর চাপিয়ে দেওয়া হবে না বলে প্রতিশ্রুতি দেন প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা।

বুধবার জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী একথা বলেন।

তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক মূল্যবৃদ্ধির কারণে আগামী অর্থবছরে জ্বালানি তেল, প্রাকৃতিক গ্যাস, সার ও বিদ্যুৎ খাতে সরকারের যে ঘাটতি হবে- তা আমরা মূল্য বাড়িয়ে ভোক্তা পর্যায়ে শতভাগ চাপিয়ে দেব না। যার ফলে আগামী অর্থবছরে ভর্তুকি ব্যয় বাড়বে। সে কারণে কার্যকর ভর্তুকি ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে ভর্তুকি ব্যয় সহনশীল মাত্রায় রাখা এবং আমদানির ওপর চাপ কমানোর লক্ষ্যে আমরা যথাযথ পদক্ষেপ নেব।

শেখ হাসিনা বলেন, করোনাটা যখন কমে গেছে আমাদের আমদানি বেড়েছে। এই আমদানি নিয়ে অনেকে অনেক কথা বলেছেন। আমরা বেশিরভাগই ক্যাপিটাল মেশিনারিজ আমদানি করেছি। এগুলো স্থাপন ও চালু হলে দেশ লাভবান হবে। এটা নিয়ে দুশ্চিন্তার কিছু নেই। এটা করতে গিয়ে হয়ত আমাদের ডলারে কিছুটা টান পড়েছে, কিন্তু সেটা এখনো আশঙ্কাজনক কোনো বিষয় নয়। মুদ্রা বিনিময় হার স্থিতিশীল রাখার জন্য আমরা সব পদক্ষেপ নিয়েছি।

তিনি বলেন, দেশের মানুষের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই। তারা বার বার ভোট দিয়ে আমাকে নির্বাচিত করেছেন। দীর্ঘ সময় ক্ষমতায় থাকার ফলে বাংলাদেশের মানুষের জন্য এই গৌরবটা আমরা বয়ে আনতে পেরেছি। নানা চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে বিগত ১৩ বছরে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক পদক্ষেপ নিয়েছি। গ্রামীণ অর্থনীতির ওপর আমরা জোর দিয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকারের নেওয়া পদক্ষেপের ফলে করোনাকালে গ্রামীণ অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়ায় এবং গ্রাম থেকে শহরে আসার প্রবণতা কমে যায়। বরং শহর থেকে মানুষ গ্রামে চলে যায়। কারণ গ্রামের অর্থনীতি ও পরিবেশ অনেক ভালো ছিল।

তিনি বলেন, করোনাকালে সব থেকে কৃষি খাতের ওপর আমরা জোর দিয়েছি। কারণ আমাদের খাদ্য উৎপাদন যাতে নিশ্চিত থাকে। কাজেই কৃষি খাতের উৎপাদন স্বাভাবিক ছিল। শিল্প খাত ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে উঠে ঘুরে দাঁড়িয়েছে।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, মানুষের জীবনজীবিকার যতটুকু সুবিধা দেওয়ার সেটা আমরা দিতে সক্ষম হয়েছি। আমরা চাই আমাদের দেশটা এগিয়ে যাক। ভবিষ্যতে যদি বাংলাদেশ কোনো সংকটে পড়ে, আমি এটুকু কথা দিতে পারি, আওয়ামী লীগ একইভাবে মানুষের পাশে থাকবে।

সবার জন্য পেনশন বীমা চালুর কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা এ প্রক্রিয়ায় অনেক দূর এগিয়েছি। অর্থমন্ত্রী আগামী অর্থবছরে সার্বজনীন পেনশন চালুর ঘোষণা দিয়েছেন। মন্ত্রিসভার সর্বশেষ বৈঠকে এ আইনের অনুমোদন দিয়েছি। খুব শিগগিরই সংসদে আইনটি উঠবে। আমরা তা কার্যকর করতে পারব। তাতে যারা পেনশন পাবেন, তাদের জীবনটা সুরক্ষিত হবে। বিস্তারিত আইনে আছে।

সর্বশেষ - দেশের খবর