সিদ্ধিরগঞ্জে ইয়াবা পাচারের অভিযোগে স্ত্রী-ছেলেসহ এক ব্যক্তিকে আটক


  প্রকাশিত হয়েছেঃ   01 February 2019

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে ইয়াবা পাচারের অভিযোগে স্ত্রী-ছেলেসহ এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। র‌্যাবের ভাষ্য, ওই ব্যক্তির পেটে ২ হাজার ২০০টি ইয়াবা বড়ি পাওয়া গেছে, স্ত্রী-ছেলেও মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে সদর উপজেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানার হিরাঝিল এলাকার একটি বাড়ি থেকে র‌্যাব তাঁদের আটক করে। আটক ব্যক্তিরা হচ্ছেন বিল্লাল হোসেন (৫৮), তাঁর স্ত্রী লিপি আক্তার (৪০) ও ছেলে অয়ন (২৫)।

র‌্যাব জানিয়েছে, আটক ব্যক্তিরা দীর্ঘদিন ধরে টেকনাফ ও কক্সবাজার থেকে পায়ুপথে বিশেষ পদ্ধতিতে ইয়াবা বহন করে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে পাচার করে আসছিল। আজ সকালে বিল্লাল হোসেন পেটে করে একটি চালান নিয়ে নারায়ণগঞ্জ আসেন।

র‌্যাব-১১–এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জসীম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সকাল ১০টার দিকে বিসমিল্লাহ হাউস নামের ওই বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। এ সময় বিল্লালকে আটক করে স্থানীয় একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে পরীক্ষা করে তাঁর পেটে ইয়াবার অস্তিত্ব পাওয়া যায়। পরে তিনি পায়ুপথ দিয়ে পেটের ভেতরে রাখা ২ হাজার ২০০টি ইয়াবা বিশেষ কৌশলে বের করে দেন।

জসীম চৌধুরী বলেন, বিল্লালকে আটকের পর তাঁর বাসায় তল্লাশি করে আরও ২০০টি ইয়াবা বড়ি জব্দ করা হয়। পাশাপাশি মাদক বিক্রির ৪২ হাজার টাকাও জব্দ করা হয়। এই মাদক পাচারের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে বিল্লালের স্ত্রী লিপি ও ছেলে অয়নকেও আটক করা হয়।

জসীম চৌধুরী বলেন, বিল্লাল প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, তিনি দীর্ঘদিন ধরে পেটের ভেতরে করে কক্সবাজার থেকে ইয়াবা পাচার করে আসছিলেন। আজ ভোরেও তিনি কক্সবাজার থেকে ঢাকাগামী একটি বাসে করে নারায়ণগঞ্জের চিটাগাং রোডে নামেন। র‌্যাবের এই কর্মকর্তা জানিয়েছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।

দেশের খবর

আপনার মতামত লিখুন :