logo
মঙ্গলবার , ১৯ জুলাই ২০২২ | ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. ক্যারিয়ার ভাবনা
  5. খেলা
  6. জাতীয়
  7. টেক নিউজ
  8. দেশের খবর
  9. প্রবাস
  10. ফিচার
  11. বিনোদন
  12. রাজনীতি
  13. লাইফস্টাইল
  14. সম্পাদকীয়
  15. সাফল্য

রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে ইন্দোনেশিয়া-আসিয়ানের সমর্থন চায় বাংলাদেশ

প্রতিবেদক
admin
জুলাই ১৯, ২০২২ ১১:৫৪ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ থেকে রোহিঙ্গাদের তাদের মাতৃভূমি মিয়ানমারে দ্রুত প্রত্যাবাসনের জন্য ইন্দোনেশিয়া এবং আসিয়ানের সক্রিয় সমর্থন চেয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

সোমবার (১৮ জুলাই) জাকার্তায় বাংলাদেশ ও ইন্দোনেশিয়ার মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে তিনি এই সমর্থন চেয়েছেন। মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) এক তথ্য বিবরণীতে এ তথ্য জানানো হয়।

বৈঠকে ঢাকার পক্ষে নেতৃত্ব দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। অন্যদি‌কে জাকার্তার পক্ষে দেশ‌টির পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেতনো এলপি মারসুদি নেতৃত্ব দেন। ড. মোমেন আসিয়ানের সেক্টরাল ডায়ালগ পার্টনারশিপে বাংলাদেশের প্রার্থিতার বিষয়ে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য ইন্দোনেশিয়াকে অনুরোধ করেন।

দুই দেশই তাদের বাণিজ্য, বিনিয়োগ, কৃষি, খাদ্য, জ্বালানি, স্বাস্থ্য, ওষুধ, কা‌নে‌ক্টি‌ভি‌টি, আইসিটি, পর্যটন, মানবসম্পদ উন্নয়ন, প্রতিরক্ষা, যুব ও সাংস্কৃতিক বিনিময়ের ক্ষেত্রে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা বাড়াতে চায়।

উভয় দেশ বাণিজ্য, বিনিয়োগ, কৃষি, খাদ্য, জ্বালানি, স্বাস্থ্য ও ওষুধ, সংযোগ আইসিটি, পর্যটন, হালাল বাণিজ্য, মানবসম্পদ উন্নয়ন, প্রতিরক্ষা, যুব ও সাংস্কৃতিক বিনিময়ের ক্ষেত্রে সহযোগিতা ত্বরান্বিত করতে সম্মত হয়েছে।

বৈঠকে দুই দেশের মধ্যে চলমান দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক পর্যালোচনা করা হয়। উভয়পক্ষ এ সম্পর্ক আরও শক্তিশালী করার বিষ‌য়ে প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত ক‌রে। দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রী কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেন, কয়েকটি সমঝোতা স্মারক শিগগির স্বাক্ষরিত হবে। তারা অর্থনৈতিক সহযোগিতা আরও জোরদার করার জন্য দ্বিপাক্ষিক পিটিএ স্বাক্ষর করার ওপর গুরুত্ব দিয়েছেন।

আনুষ্ঠানিক আলোচনা শেষে দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুবর্ণজয়ন্তী উদ্‌যাপনের আনুষ্ঠানিক লোগো এবং ইন্দোনেশিয়ান ভাষায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের অনুবাদ পুস্তকের মোড়ক উন্মোচন করেন।

ড. মোমেন একই দিন জাকার্তায় ইন্দোনেশিয়ার বাণিজ্যমন্ত্রী জুলকিফলি হাসানের সঙ্গেও সাক্ষাৎ করেন।

দুই মন্ত্রী দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য সম্পর্ক পর্যালোচনা করেন এবং কূটনৈতিক সম্পর্কের সুবর্ণজয়ন্তীতে এই বছরে দ্বিপাক্ষিক পিটিএ ত্বরান্বিত করতে সম্মত হন।

ড. মোমেন ইন্দোনেশিয়ার প্রতিনিধি দলকে বাণিজ্য ব্যবধান মেটাতে পিটিএতে আরএমজি আইটেম অন্তর্ভুক্ত করার জন্য বাংলাদেশের অনুরোধ আন্তরিকভাবে বিবেচনা করার অনুরোধ করেন।

তিনি ইন্দোনেশিয়ার বাণিজ্যমন্ত্রীকে এ বছর পারস্পরিক সুবিধাজনক সময়ে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান।

সন্ধ্যায় ড. মোমেন ইন্দোনেশিয়ার ব্যবসায়ী ও বিনিয়োগকারীদের এক সমাবেশে ভাষণ দেন এবং দ্রুত উন্নয়নশীল দেশে বিদ্যমান সুযোগগুলো কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশে বিনিয়োগ করার আহ্বান জানান।

তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদ্‌যাপনে জাকার্তায় বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে বের করা একটি বাণিজ্যিক ডাকটিকিটও উন্মোচন করেন।

সর্বশেষ - দেশের খবর

আপনার জন্য নির্বাচিত