logo
Monday , 23 October 2023
  1. সকল নিউজ

বিনিয়োগ সম্ভাবনা ইউরোপে তুলে ধরবে বাংলাদেশ

প্রতিবেদক
admin
October 23, 2023 4:17 pm

গত কয়েক বছর উন্নয়নে বাংলাদেশের অভূতপূর্ব অর্জন এবং বিনিয়োগ সম্ভাবনা তুলে ধরতে ইউরোপে শুরু হচ্ছে ধারাবাহিক রোডশা। আজ সোমবার ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে শুরু হচ্ছে বিনিয়োগ সম্মেলন। বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) এবং বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা) যৌথভাবে এসব রোডশো ও সম্মেলন আয়োজন করছে।

ফ্রান্সে বসবাসরত বাংলাদেশি ও বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করতে আগামী ২৫ অক্টোবর টুলুস শহরে অনুষ্ঠিত হবে পরবর্তী রোডশো। এরপর ৩০ অক্টোবর জার্মানির বার্লিন ও ১ নভেম্বর ফ্রাঙ্কফুর্ট এবং ৩ নভেম্বর বেলজিয়ামের ব্রাসেলসে অনুষ্ঠিত হবে বিনিয়োগ সম্মেলন।

এসব সম্মেলনে বাংলাদেশে বিনিয়োগের সুযোগ-সুবিধা, উন্নয়ন কর্মকা-, বিনিয়োগবান্ধব সরকারি নীতি, সার্বিক আর্থিক পরিস্থিতি এবং এফডিআইয়ের বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারের সহযোগিতা অতিথিদের সামনে তুলে ধরা হবে। বিশেষ করে প্রবাসী ও বিদেশি বিনিয়োগকারীদের সরাসরি শেয়ারবাজারে বিনিয়োগের কৌশল ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা সম্পর্কে জানানো হবে।

জানা গেছে, ২০৪১ সালের রূপকল্প পরিকল্পনায় অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগ আকৃষ্ট করার ওপর জোর দিয়েছে বাংলাদেশ। জ্বালানি, পানি, লজিস্টিক এবং পরিবহন খাতে বাংলাদেশে এখন ৩৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের অবকাঠামো গড়ার সুযোগ রয়েছে। ২০২৫ সালের মধ্যে শুধু লজিস্টিকস খাতের বাজার ৯০ বিলিয়ন ডলারে পরিণত হবে বলে আশা করা হচ্ছে। বিডার তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের সাড়ে ১০ মাসে বাংলাদেশে ৯০০ মিলিয়ন ডলার বিদেশি বিনিয়োগ এসেছে। এই পরিমাণ বাড়াতে বিনিয়োগ সংক্রান্ত সমস্যা সমাধানে ৯০ ধরনের সেবা দিচ্ছে বিডা।

৩৮টি হাই-টেক পার্ক নির্মাণ করেছে বাংলাদেশ। এর সবগুলো বিদেশি বিনিয়োগের জন্য উন্মুক্ত রাখা হয়েছে। বাংলাদেশে প্রায় ৬ লাখ ৫০ হাজার শিক্ষিত ও দক্ষ ফ্রিল্যান্সার রয়েছে; যা বিশ্বে অনলাইন শ্রমের জন্য দ্বিতীয় বৃহত্তম। বাংলাদেশে যেভাবে অভ্যন্তরীণ বাজার বড় হচ্ছে, সেটা এমনকি সিঙ্গাপুরের কয়েকগুণ বড়। ইলেকট্রনিক্স, ফ্রিজ-এসির মতো গৃহস্থালি পণ্য, মোটরবাইক ইত্যাদি একসময় বিদেশ থেকে আমদানি করা হলেও এখন বাংলাদেশেই উৎপাদন বা সংযোজন করা হচ্ছে।

বাংলাদেশে এখন বিনিয়োগের উত্তম সময় চলছে বলে মনে করেন ফরেন ইনভেস্টর্স চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফআইসিসিআই) সভাপতি নাসের এজাজ বিজয়। তিনি বলেন, ‘বিদেশিরা এখন বাংলাদেশের বিনিয়োগে আগ্রহী, তারা দেখছেন সময় সুযোগ বুঝে বিনিয়োগ করছেন।’

ইউরোপের আগে বিশে^র কয়েকটি অঞ্চলে বিনিয়োগ সম্মেলন আয়োজন করা হয়েছে। দুবাই দিয়ে এর শুরু হয়। পরে ধারাবাহিকভাবে যুক্তরাষ্ট্র, সুইজারল্যান্ড, যুক্তরাজ্য, কাতার, জাপান এবং দক্ষিণ আফ্রিকায় সফল রোডশো সম্পন্ন করে বিএসইসি। ৭টি দেশে এই ১২টির বেশি শহরে এসব আয়োজন করা হয়েছে। এ ছাড়া আগামীতে সিঙ্গাপুর, কানাডা, রাশিয়া, ইতালি, হংকং, মালয়েশিয়াসহ বিভিন্ন দেশে রোডশো আয়োজনের পরিকল্পনা রয়েছে।

আজ সোমবার ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে স্থানীয় সময় বিকাল ৪টায় ‘দ্য রাইজ অব বেঙ্গল টাইগার : বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড বিজনেস সামিট’ অনুষ্ঠিত হবে। দেশটির ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলের অপেরা বলরুমে এ আয়োজন রাত পর্যন্ত চলবে। বিএসইসি ও বিডার এই আয়োজনে সহযোগী হিসেবে রয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং দুই দেশের দূতাবাস।

সম্মেলনে বাংলাদেশ সরকারের মন্ত্রী, উপদেষ্টা, দেশটিতে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত, বিভিন্ন প্রাতিষ্ঠানিক ও ব্যক্তি বিনিয়োগকারী এবং স্টেকহোল্ডাররা অংশ নেবেন। বাংলাদেশের অতিথিরা বিভিন্ন সেক্টর নিয়ে প্রাতিষ্ঠানিক ও ব্যক্তি বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখবেন। সেখানে বাংলাদেশে বিনিয়োগের সুযোগ-সুবিধা, বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড, সরকারের বিনিয়োগবান্ধব নীতি, শেয়ারবাজার ও সার্বিক অর্থনীতির পরিস্থিতি এবং এফডিআইয়ের বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারের সহযোগিতা অতিথিদের সামনে তুলে ধরা হবে। এ ছাড়া দেশের শেয়ারবাজারে বিনিয়োগে আগ্রহী করে তুলতে বিনিয়োগসংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরা হবে।

বিএসইসি মনে করে, গত ১০ বছরে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে ঈর্ষণীয় অগ্রগতি হয়েছে। কিন্তু অর্থনীতির অর্জন ও সম্ভাবনাগুলো উন্নত দেশের বিনিয়োগকারীদের কাছে তুলে ধরা হয়নি। এ কারণে সেভাবে বিদেশি বিনিয়োগ আসেনি। বিএসইসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বলেন, বিনিয়োগ এখন বাংলাদেশের জন্য খুবই জরুরি। আমাদের দেশে এখন বিনিয়োগের অনেক বড় ক্ষেত্র রয়েছে। বিনিয়োগের মাধ্যমে কৃষি, স্বাস্থ্য, প্রযুক্তি সব ক্ষেত্রেই উন্নয়নকে আরও বেগবান করার সুযোগ রয়েছে। এই মুহূর্তে দেশে বিনিয়োগ আনা বড় কাজ বলে আমরা অনেক সমালোচনার মধ্যেও কান্ট্রি ব্র্যান্ডিং শুরু করেছি।

বাংলাদেশে এখন বিদেশি বিনিয়োগে কোনো চ্যালেঞ্জ নেই বলে মনে করেন বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী চেয়ারম্যান লোকমান হোসেন মিয়া। তিনি বলেন, আমরা বেশির ভাগ সেবা ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে দিতে পারছি।

বিদেশিদের সামনে বিনিয়োগ সম্ভাবনা তুলে ধরতে রোডশো ভালো উদ্যোগ বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) চেয়ারম্যান হাফিজ মো. হাসান বাবু বলেন, এর মাধ্যমে বিভিন্ন দেশের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আমাদের সেতুবন্ধ তৈরি হয়েছে। এতে দীর্ঘমেয়াদে দেশের অর্থনীতি সুফল পাবে। সিডিবিএলের ভাইস চেয়ারম্যান একেএম নূরুল ফজল বুলবুল বলেন, বর্তমান কমিশনের নেতৃত্বে যে কয়েকটি রোডশো হয়েছে সেগুলো খুবই ভালো হয়েছে। এতে নিঃসন্দেহে দেশের ইমেজ বৃদ্ধি পেয়েছে। অনেক দেশ বাংলাদেশের বর্তমান অবস্থান সম্পর্কে জানে না। রোডশোর মাধ্যমে তারা জানতে পারছেন। এতে দেশের জন্য নতুন সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। ভবিষ্যতে আরও সুফল পাওয়া যাবে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সাবেক সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আহমেদ রশিদ লালী বলেন, দেশের অর্থনৈতিক বিভিন্ন সূচকে নানা অগ্রগতি হয়েছে। এ বিষয়ে অনেক দেশ এবং দেশের মানুষ, এমনকি প্রবাসীরাও অনেক বিষয়ে জানেন না। বিএসইসির চেয়ারম্যান রোডশোর মাধ্যমে দেশের উন্নয়ন তুলে ধরেছেন। এর সুফল ভবিষ্যতে পাওয়া যাবে। ইতোমধ্যে অনেক বিনিয়োগকারী বাংলাদেশে বিনিয়োগের জন্য খোঁজখবর নেওয়া শুরু করেছেন।

সর্বশেষ - সকল নিউজ

আপনার জন্য নির্বাচিত

নকল সোনা দেয়ায় বরপক্ষকে সারারাত আটকে রেখে লাখ টাকা জরিমানা!

৩ মামলায় ওয়ারেন্ট থাকায় এ্যানিকে গ্রেপ্তার: ডিবিপ্রধান

আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী আজ হাফেজ তাকরীমকে সংবর্ধনা দেবে ধর্ম মন্ত্রণালয়

সিত্রাং এখন স্থল নিম্নচাপ, কেড়েছে ১০ জনের প্রাণ

আওয়ামী লীগকে নেতৃত্ব শূন্য করতে এখনও তৎপর বিএনপি ও জামায়াত : শেখ তন্ময়

সাফাদির সঙ্গে বিএনপির আসলামের বৈঠকের পক্ষে ‘সাফাই’ নুরের

ঈদুল ফিতরে অপরাজনীতি চিরতরে দূর হওয়ার প্রার্থনা পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

লকডাউন নিয়ে যেসব প্রশ্ন ছুড়লেন ফখরুল

মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় কার্যকর ভূমিকা রাখার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

সব ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে: রাষ্ট্রপতি