logo
Wednesday , 23 August 2023
  1. সকল নিউজ

এক জমিতে বছরে চার ফসল চাষের সম্ভাবনা

প্রতিবেদক
admin
August 23, 2023 9:29 am

টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে নতুন জাত ব্রি-৯৮ ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। স্বল্প সময়ে এ ধানের ফলন আসে। নতুন এ ধান চাষে কৃষকের আগ্রহ দেখা দিয়েছে। স্বল্প জীবনকালের ফলে এক জমিতে এক বছরে চারটি ফসল চাষের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। কৃষকরা ফলন পাচ্ছেন বিঘাপ্রতি ৩০ থেকে ৪০ মণ। স্থানীয় কৃষক ও কৃষি বিভাগ মনে করছে, এ ধান চাষ জনপ্রিয় করতে পারলে আউশ আবার বড় ফসলে পরিণত হবে।

টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে মুশুদ্দি গ্রামে ব্রি-৯৮ জাতের আউশ ধানের খেত পরিদর্শনে গিয়েছিলেন কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক এমপি।

এ সময় কৃষিমন্ত্রী বলেন, দিন দিন কৃষিজমি কমে যাচ্ছে, বিপরীতে জনসংখ্যা বাড়ছে। পৃথিবীর সবচেয়ে জনবহুল এ দেশের ১৭ কোটি মানুষের খাদ্যের জোগান ঠিক রাখতে হলে একই জমি থেকে বছরে বারবার ফসল ফলাতে হবে, বেশি করে ফসল ফলাতে হবে। সাধারণত ১৪০-১৬০ দিনের মধ্যে ধান হয়, সেই ধান যদি ৯০-১০০ দিনের মধ্যে হয়, তাহলে সেটি বিরাট সম্ভাবনাময়। ব্রি-৯৮ আউশ ধান এই সম্ভাবনা নিয়ে এসেছে, ৯০-১০০ দিনে হচ্ছে, ফলনও বিঘাতে ২৫-৩০ মণ। এ জাত সারা দেশে ছড়িয়ে দিতে পারলে খাদ্য নিরাপত্তায় ব্যাপক ভূমিকা রাখবে।

মন্ত্রী বলেন, উন্নত জাতের অভাব এবং খরা, বন্যা ও অতিবৃষ্টির ঝুঁকির কারণে দেশে এখন আউশ ধান অনেক কমে গেছে। বেড়েছে বোরো ও আমনের চাষ। ইতোমধ্যে আমাদের বিজ্ঞানীরা স্বল্পজীবনকালীন উন্নত জাতের আউশ ধান উদ্ভাবন করেছেন। ব্রি-৯৮ মাঠে খুবই সম্ভাবনা দেখাচ্ছে। এ জাতটি মাঠ পর্যায়ে জনপ্রিয় করতে পারলে দেশে আউশ আবার বড় ফসলে পরিণত হবে।

একই জমি থেকে বছরে ৪টি ফসল ঘরে তোলার পরিকল্পনার কথা জানান মুশুদ্দি গ্রামের কৃষক মিজানুর রহমান। তিনি জানান, ব্রি-৯৮ জাতের এই আউশ ধানটি ২০ দিনের চারাসহ মোট ৯৮-১০০ দিনের মধ্যে কর্তন করেছেন। এর আগে তিনি এই জমিতে বোরো মৌসুমে ব্রি-৯৮ চাষ করেছিলেন। এখন তিনি আমনে ব্রি-৭৫ লাগাবেন এবং আমন কেটে স্বল্প জীবনকালীন সরিষার আবাদ করবেন।

সাংবাদিক আনছার আলী জানান, এ ধান চাষে আউশ আমন বোরো ও সরিষা চাষ করা যাচ্ছে । ফলে এক জমিতে এক বছরে চারটি ফসল চাষের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। জমি অলস পড়ে থাকবে না। খাদ্য নিরাপত্তায় এ নতুন জাতের ধান গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। ধান গবেষণার প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. আমেনা খাতুনের মাধ্যমে তারা বীজ পেয়েছেন স্থানীয় কৃষি বিভাগের মাধ্যমে তারা এ নতুন জাতের ধান চাষ করে সফলতা পাচ্ছেন।

ধনবাড়ী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মাসুদুর রহমান বলেন, এ বছর ধনবাড়ীতে ১৫০ হেক্টর জমিতে আউশ ধানের চাষ হয়েছে। এর মধ্যে ৩০ বিঘা ব্রি-৯৮ জাতের ধান চাষ হযেছে। আউশের গড় ফলন সাড়ে ৪ মেট্রিক টন। ব্রি-৯৮ ধানের গড় ফলন সাড়ে ৫ মেট্রিক টন। তবে মুশুদ্দিতে কৃষকরা সাড়ে ৬ থেকে ৭ মেট্রিক টন পর্যন্ত ফলন পাচ্ছেন। ব্রি-৯৮ জাতের ধানটি ধনবাড়ীতে এ বছর প্রথম হচ্ছে।

সর্বশেষ - সকল নিউজ

আপনার জন্য নির্বাচিত

জাতীয় কবি কাজী নজরুলের ১২৩তম জন্মবার্ষিকী আজ

কৃষকের ধান কেটে ও মাড়াই করে ঘরে তুলে দিল যুবলীগ

আজ মন্ত্রিসভায় উঠছে আরপিও সংশোধনী যে কোনো পর্যায়ে নির্বাচন বন্ধের ক্ষমতা পেতে যাচ্ছে ইসি

আমি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী, প্রতিটি নাগরিকের দায়িত্ব আমার: শেখ হাসিনা

বিএনপির অশুভ কামনায় দেশের অশুভ হবে না : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সব সরকারি দপ্তরে বিদ্যুতের ব্যবহার ২৫ শতাংশ কমানোর সিদ্ধান্ত

‘বিএনপি এনেছিল চোরের স্বীকৃতি, শেখ হাসিনা এনেছে ২৬টি পদক’

ডিজিটাল ক্ষুদ্র ঋণ তহবিলের আকার বাড়ল ৪০০ কোটি টাকা

বিএনপির এমপিদের পদত্যাগে সরকারের কিছু যায় আসে না : হানিফ

পদ্মা সেতুসংলগ্ন ‘বঙ্গবন্ধু অপেরা হাউজ’ নির্মাণের পরিকল্পনা