logo
শুক্রবার , ২০ জানুয়ারি ২০২৩ | ১৭ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. ক্যারিয়ার ভাবনা
  5. খেলা
  6. জাতীয়
  7. টেক নিউজ
  8. দেশের খবর
  9. প্রবাস
  10. ফিচার
  11. বিনোদন
  12. রাজনীতি
  13. লাইফস্টাইল
  14. সম্পাদকীয়
  15. সাফল্য

বিএনপির ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া উচিত: ওবায়দুল কাদের

প্রতিবেদক
admin
জানুয়ারি ২০, ২০২৩ ১২:২৬ অপরাহ্ণ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ষড়যন্ত্র ও মিথ্যায় যদি নোবেল প্রাইজ থাকত তাহলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম সেটার প্রাপ্য হতেন।

কোনো রাষ্ট্র বা দলকে নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার বিধান কারও নেই। যদি থাকত মিথ্যাচার ও ষড়যন্ত্রের জন্য বিএনপিকে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া উচিত, আওয়ামী লীগকে নয়। বৃহস্পতিবার রাজধানীর বনানীতে সেতু কর্তৃপক্ষের বোর্ড সভা শেষে সংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

বিএনপির কর্মসূচির দিন আওয়ামী লীগও কর্মসূচি দেয় কেন? এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগের কর্মসূচির কারণে বিএনপির সঙ্গে সংঘাত ঘটেছে কি? আওয়ামী লীগ তার কর্মসূচি পালন করতে গিয়ে সংঘাতে গেছে, এমন একটা ঘটনাও নেই। মির্জা ফখরুলও এমন উদাহরণ দিতে পারবেন না। তারা কর্মসূচি পালন করতে আগুন সন্ত্রাস, পুলিশের ওপর হামলা, বাস পোড়ানো, নাশকতা করেন। আমরা যেহেতু ক্ষমতায় আছি, জনগণের জানমালের অধিকার রক্ষা করা আমাদের ওয়াদা, দায়িত্ব ও কর্তব্য।

নির্বাচন সামনে রেখে জঙ্গি নাশকতা হতে পারে এমন আশঙ্কা জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বিএনপি আমলে এ দেশে জঙ্গিবাদ, উগ্রবাদ সৃষ্টি হয়। এখন এরা চুপচাপ থাকলেও তলে তলে বিএনপির পৃষ্ঠপোষকতায় বড় ধরনের নাশকতা করার চেষ্টা করছে। এসব বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার তথ্যে জানতে পারছি।’

‘সরকারি সিদ্ধান্ত ছিল অফিস খোলার দিন সমাবেশ নয়, তবুও আওয়ামী লীগ সমাবেশ করছে’- এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ রাস্তা দখল করে কর্মসূচি করে না। বিএনপি সমাবেশ করলে একসঙ্গে অনেক রাস্তা বন্ধ থাকে। নয়াপল্টনে তাদের দলীয় কার্যালয়ের সামনেও সমাবেশ করলে আশপাশের রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। আর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের সমাবেশে পাশের দুই রাস্তা খোলা থাকে, কোনো সমস্যা হয় না।

বিএনপির ভেতরে গণতন্ত্র নেই জানিয়ে সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, যাদের নিজ দলেই গণতন্ত্র নেই, তারা দেশে কী করে গণতন্ত্র আনবে? বিএনপির মুখে গণতন্ত্রের কথা শোভা পায় না। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অনেক আগেই গণতন্ত্র শৃঙ্খলমুক্ত হয়েছে।

বিএনপির নতুন করে গণতন্ত্র উদ্ধার করার প্রয়োজন নেই। নিজেদের শাসনামলে তারা গণতন্ত্রকে কতটা গুরুত্ব দিয়েছে সেটা খুঁজে দেখুক। তিনি বলেন, আজিজ মার্কা কমিশন, মাগুরা, ১৫ ফেব্রুয়ারি ও ঢাকা-১০ আসনের নির্বাচন, ২০০৬ সালে এক কোটি ভুয়া ভোটার দেখলেই বোঝা যায় তারা তো গণতন্ত্র মানে না, হত্যা করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের মন্ত্রী ডোনাল্ড লুর সফর নিয়ে সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আমাদের বন্ধু দেশ। ডোনান্ড লু কী বলেছেন, তার ভিডিও আছে। এটা আমার কথা নয়, তার কথা; মিথ্যাচারও নয়। তিনি সরকারের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে প্রশংসা করেছেন। বিভিন্ন সংস্থার সঙ্গে কথা বলেছেন।

সর্বশেষ - রাজনীতি

আপনার জন্য নির্বাচিত