লন্ডন বসে রিমোট কন্ট্রোলে দল চালাচ্ছেন:বললেন কৃষিমন্ত্রী

adminadmin
  প্রকাশিত হয়েছেঃ   16 May 2022

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কৃষিমন্ত্রী মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, খালেদা জিয়ার অবর্তমানে যিনি বিএনপি চালাবেন, তিনি লন্ডনে বসে ভোগবিলাসে মত্ত। রিমোট কন্ট্রোলে দল চালাচ্ছেন। কিন্তু লন্ডন থেকে রিমোট কন্ট্রোলে হুমকি দিয়ে ক্ষমতায় আসা যাবে না।

আজ রোববার দুপুরে নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরজব্বারে ও বিএডিসি খামারে সয়াবিন, ভুট্টা ও সূর্যমুখীর মাঠ পরিদর্শন এবং কৃষকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘ক্ষমতায় আসার জন্য বিরোধী দলের নেতারা হুমকি দিতে পারেন—এটা অস্বাভাবিক কিছু না। আমরা দেখেছি, বিএনপি ২০০৯ সাল থেকে শুরু করেছে, ২০১৪ সালের নির্বাচন বানচাল করার জন্য হরতাল–অবরোধ দিয়েছিল। নির্বাচনের দিনেও তারা অগ্নিসংযোগ করেছে। বাসের মধ্যে রেখে আগুন লাগিয়ে মানুষজনকে দগ্ধ করে মেরেছে।’
বিজ্ঞাপন

বিএনপিকে উদ্দেশ করে কৃষিমন্ত্রী বলেন, ক্ষমতা যেতে হলে মানুষের কাছাকাছি যেতে হবে। মানুষের দুঃখ–কষ্টের সঙ্গে নিজেকে সম্পৃক্ত করতে হবে। তা ছাড়া ক্ষমতায় আসা যাবে না।

আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু হবে মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘আমরা আগামী নির্বাচন নিরপেক্ষ করব। ৮ মে আওয়ামী লীগের নির্বাহী সংসদের সভায় সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগের নেতা–কর্মীদের প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে। জনগণের কাছে যেতে বলা হয়েছে।’

কৃষকদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, ‘নোয়াখালীর অনাবাদি পতিত জমিগুলো আবাদের আওতায় আনতে আউশ ধানের উচ্চফলনশীল জাত উদ্ভাবন করেছেন আমাদের বিজ্ঞানীরা। আপনারা অধিক ফলনশীল এ জাতগুলো রবি ফসল কর্তনের পরপরই আবাদ করবেন। চাষাবাদের প্রয়োজনীয় প্রযুক্তি ও সহযোগিতা দিতে বীজ, সার ও সেচব্যবস্থার উন্নয়নে কাজ করছে বিএডিসি। জাতগুলো কৃষকের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর প্রতিটি ইউনিয়ন পর্যায়ে কাজ করছে।’

বিএডিসির চুক্তিবদ্ধ চাষিদের সয়াবিন বীজ ফসলের মাঠ পরিদর্শনকালে মন্ত্রী চরাঞ্চলে অবস্থিত অনাবাদি পতিত জমিতে তেলজাতীয় ফসল সয়াবিন, সূর্যমুখী ও শর্ষের আবাদ বাড়ানোর পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, তেলজাতীয় ফসল আবাদে উৎপাদন খরচ কম এবং লাভ বেশি। এ বিষয়ে সরকারের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় বীজ, সার, প্রযুক্তি, প্রশিক্ষণ প্রদানসহ সব ধরনের সহযোগিতা দেওয়া হবে।

এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে কৃষিসচিব মো. সায়েদুল ইসলাম, বিএডিসির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম, পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক মির্জা মোফাজ্জল ইসলাম, বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক শাহজাহান কবীর, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বেনজীর আলম, সুগারক্রপ রিসার্চ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক আমজাত হোসেন, নোয়াখালী-৩ আসনের সংসদ সদস্য মামুনুর রশীদ কিরণ, জেলা প্রশাসক দেওয়ান মাহবুবুর রহমান, জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম, বিএডিসির সুবর্ণচর প্রকল্পের পরিচালক আজিম উদ্দিনসহ জেলায় কর্মরত বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :