logo
মঙ্গলবার , ৩০ আগস্ট ২০২২ | ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. ক্যারিয়ার ভাবনা
  5. খেলা
  6. জাতীয়
  7. টেক নিউজ
  8. দেশের খবর
  9. প্রবাস
  10. ফিচার
  11. বিনোদন
  12. রাজনীতি
  13. লাইফস্টাইল
  14. সম্পাদকীয়
  15. সাফল্য

আইন হলে কোচিং-বাণিজ্য বন্ধ হবে: দীপু মনি

প্রতিবেদক
admin
আগস্ট ৩০, ২০২২ ৮:৫৯ পূর্বাহ্ণ

প্রস্তাবিত আইন পাস হলে কোচিং বাণিজ্য বন্ধ হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। সোমবার (২৯ আগস্ট) মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে শিক্ষা বিষয়ক রিপোর্টারদের সংগঠন এডুকেশন রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ (ইরাব) এবং বাংলাদেশ এডুকেশন রিপোর্টার্স ফোরামের (বিইআরএফ) প্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসব কথা জানান তিনি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘কোচিং খারাপ নয়, সমস্যা কোচিং বাণিজ্য। শিক্ষা আইনের মধ্যে কোচিংয়ের ব্যাপারটা অ্যাড্রেস করেছি। আমি বারবার বলছি, কোচিংয়ের দরকার হতে পারে। সব শিক্ষার্থী ক্লাসরুমে সব শিখে ফেলবার অবস্থা নাও থাকতে পারে। কোনও শিক্ষকের সব শিক্ষার্থীকে এক রকম করে বোঝাবার অবস্থা নাও থাকতে পারে। বাড়িতে বাবা-মা বা অন্য অভিভাবকের শেখাবার সময় নাও থাকতে পারে। সে ক্ষেত্রে বাইরের একটি সাপোর্ট শিক্ষার্থীর দরকার হতে পারে। পৃথিবীর সব দেশেই কোচিং রয়েছে। আমাদের এখানে নানা ধরনের কোচিং রয়েছে। কোচিং খারাপ না, কিন্তু কোচিংয়ের মধ্যে যদি এরকম বিষয় এসে যায় যে ক্লাসের শিক্ষক যদি শিক্ষার্থীকে তার কাছে কোচিং করতে বাধ্য করেন, তাহলে সেটি অনৈতিক। এটি যেন কোনোভাবেই না হয়, সে জন্য আমরা শিক্ষা আইনে বলেছি— শিক্ষক তার নিজের ক্লাসের শিক্ষার্থীকে পড়াতে পারবেন না। বলতে পারেন, বাস্তবায়ন কীভাবে হতে পারে? অনেক কিছুই বাস্তবায়নে সমস্যা হয়ে থাকে। যদি আইনে হয়, আর যদি সচেতনতা তৈরি করতে পারি তাহলে সম্ভব। পরীক্ষার সময় কোচিং বন্ধ করার পর সারা দেশ থেকে আমাদের কাছে মেসেজ আসে—কোথায় কোথায় কোচিং হয়। আমরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে শেয়ার করি, তখন তারা ব্যবস্থা নেন। যদি আইনের এই প্রস্তাবটি পাস হয়, তাহলে এটি বাস্তবায়নের সুযোগ থাকবে।’

শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে নেতৃত্ব দেন ইরামের সভাপতি ভোরের কাগজের রিপোর্টার অভিজিৎ ভট্টাচার্য এবং ইরাবের সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের রিপোর্টার আকতারুজ্জামান।

এই মতবিনিময় সভায় শিক্ষা বিষয়ক রিপোর্টারদের আরেক সংগঠন বাংলাদেশ এডুকেশন রিপোর্টার্স ফোরামের (বিইআরএফ) সভাপতি ও চ্যানেল আইয়ের মোস্তফা মল্লিক, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ও বাংলা ট্রিবিউনের সিনিয়র রিপোর্ট এস এম আববাস ও বিইআরএফের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শারমিন নিরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে ইরাবের উপদেষ্টা রাকিব উদ্দিন, সাবেক সভাপতি মোশতাক আহমেদ, ইরাবের সহ-সভাপতি নুরুজ্জামান মামুন, যুগ্ম সম্পাদক নাজিউর রহমান সোহেল, সাংগঠনিক সম্পাদক মুরাদ হুসাইন, কোষাধ্যক্ষ এলতেফাত হোসাইন, দফতর সম্পাদক সেলিম আহমেদ, প্রচার সম্পাদক রাহুল শর্মা, প্রকাশনা সম্পাদক তুহিন সাইফুল, প্রশিক্ষণ ও গবেষণা সম্পাদক রুম্মান তূর্য, ক্রীড়া ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক মুরাদ মজুমদার, আইসিটি সম্পাদক এনামুল হক প্রিন্স, কার্যনির্বাহী সদস্য বিভাষ বাড়ৈ, আবদুল হাই তুহিনসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ - দেশের খবর