বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতারা সব সুবিধাবাদী!

adminadmin
  প্রকাশিত হয়েছেঃ   10 February 2021

নিউজ ডেস্ক:
অর্থবিত্তের লোভে সরকারের কাছে বিএনপির কেন্দ্রীয় সুবিধাবাদী নেতারা নিজেদেরকে বিক্রি করেছেন বলে মনে করছেন তৃণমূলের বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা।

তাদের দাবি, খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করছেন দলের দায়িত্বশীল সুবিধাবাদী কিছু নেতা। যারা আন্দোলন-সংগ্রাম বা দলের সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডে এক পা এগোলে স্বার্থের চিন্তায় দু পা পিছিয়ে যান। প্রতারক, প্রবঞ্চক ও শিক্ষিত এসব চোর নেতাদের হাত থেকে মুক্ত হতে না পারলে কোনোদিনই ঘুরে দাঁড়াতে পারবে না বিএনপি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক তৃণমূল নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, রাজনীতিতে সিদ্ধান্তহীনতা, এক হাত এগিয়ে আবার দু হাত পিছিয়ে যাওয়া যেন বিএনপির নিত্যসঙ্গী।

তারা বলেন, প্রেসব্রিফিং, মানববন্ধন, সরকারের সমালোচনা ও বিভিন্ন মহলে অভিযোগ দেয়াই এখন বিএনপি নেতাদের মূল রাজনীতি। গত ৫ বছরের বেশি সময় ধরে দল ঢেলে সাজানো বা দল গোছানোর নামে কমিটি গঠনেই দলীয় কর্মকাণ্ড সীমাবদ্ধ রয়েছে। এই দল গোছানো এবং সাজানোর প্রক্রিয়ায় বছরের পর বছর জুড়েই ব্যস্ত থাকতে দেখা যায় নেতাদের।

বিএনপির একটি অংশ বলছে, বিশেষ একটি মহলের সঙ্গে কারসাজি করে বিএনপিকে দল গঠন প্রক্রিয়ায় আটকে রেখেছে সিনিয়র নেতাদের সমন্বয়ে গঠিত দালাল সিন্ডিকেট।

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের ভাষ্যমতে, খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলন থেকে শুরু করে সংসদ নির্বাচন, সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনসহ জাতীয় বিভিন্ন ইস্যুতে বিএনপিকে কৌশলে ব্যর্থতার মুখে ফেলে দিয়েছে দলটির একটি দালাল চক্র।

তারা বলেন, বিশেষ একটি মহলের সঙ্গে আঁতাত করে খালেদা জিয়ার স্থায়ী মুক্তি, দলকে শক্তিশালীকরণ প্রক্রিয়াকে ব্যাহত করছেন মির্জা ফখরুল-রিজভীদের মতো কিছু সুবিধাভোগী নেতারা। শুধু আলোচনা-বিবৃতি, মানববন্ধন করে বিএনপির পুনর্গঠন প্রক্রিয়াকে কৌশলে দাবিয়ে রাখা হচ্ছে। দিন শেষে প্রতারিত হচ্ছেন খালেদা ও তার দল। মুখে দলীয় নেত্রীর মুক্তি চাইলেও অন্তরে বিএনপির সুবিধাবাদীদের কথা ভিন্ন। সুবিধাবাদী চক্রের কারণে তৃণমূলেও অসাড় হয়ে পড়েছে বিএনপির রাজনীতি।

আপনার মতামত লিখুন :