ঢাকা, আজ শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯

ভারতের উত্তরপ্রদেশে মসজিদ তৈরির জন্য ৯০০ বর্গফুট জমি দিলেন শিখেরা!

প্রকাশ: ২০১৯-১১-২৮ ০৮:৫৩:৩৫ || আপডেট: ২০১৯-১১-২৮ ০৮:৫৩:৩৫

সবার ওপরে মানুষ সত্য, তাহার উপরে নাই। তাই শিষ্যদের সব জাতি–ধর্মের মানুষকে সমানভাবে শ্রদ্ধা করতে শিখিয়েছিলেন গুরু নানক। সেই শিক্ষা আজও মেনে চলছেন শিখরা। দেশ–বিদেশে সেই কাজই করে চলেছেন। এবার উত্তরপ্রদেশের মুজফ্‌ফরনগরে মসজিদ তৈরির জন্য ৯০০ বর্গফুট জমি দিলেন ৭০ বছরের এক শিখ ব্যক্তি।

ভারতবর্ষ যে সত্যিই বৈচিত্রের মধ্যে ঐক্য সেটা এমন ঘটনায় প্রতীয়মাণ। এই নভেম্বর মাস জুড়ে দেশ–বিদেশে গুরু নানকের ৫৫০তম জন্মদিন উদযাপন করছেন ভক্তরা। সেই উদযাপনের অংশ হিসেবেই মুজফ্‌ফরনগরের পুরকাজি শহরে জমি দিলেন সুখপাল সিং বেদি। ‌৭০ বছরের বেদি সমাজসেবীও।

জমিদানের কাগজপত্র নগর পঞ্চায়েতের চেয়ারম্যান জাহির ফারুকির হাতে তুলে দিয়েছেন তিনি। পুরকাজিতে মুসলিমরাই সংখ্যাগরিষ্ঠ। তাঁদের প্রার্থনার জন্যই জমিটি তাই দান করলেন বেদি। জানালেন, এভাবে আসলে নিজের গুরুর বাণীই তিনি প্রচার করতে চান। তাঁর দেখানো পথে হেঁটে সর্বধর্মে সমন্বয় আনতে চান।

শিখদের এই ধরনের পদক্ষেপ অবশ্য নতুন নয়। গোটা দুনিয়ায় যখনই মানুষ সমস্যায় পড়েছেন, শিখরা পাশে দাঁড়িয়েছেন। কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা রদ হওয়ার পর থেকে অচলাবস্থা জারি। ইন্টারনেট, দোকান, বাজার এমনকী ব্যাঙ্ক পরিষেবাও বন্ধ ছিল। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে কাশ্মীরি পড়ুয়ারা অথৈজলে পড়েন। বাড়িতে যোগাযোগ করতে পারছেন না।

প্রয়োজনীয় টাকাও হাতে পাচ্ছেন না। এই সময় পাঞ্জাবে তাঁদের পাশে দাঁড়ান শিখরা। কলেজের হোস্টেলে ঘুরে ঘুরে খাবার দেয় শিখ সংগঠন। হোস্টেলের ফি, খাবারের খরচও জোগান দেয় তাঁরা। বাংলাদেশের টেকনাফে রোহিঙ্গা শিবিরে ও তারা হাজির হয় তাদের সাহায্য নিয়ে।