logo
রবিবার , ২৩ অক্টোবর ২০২২ | ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. ক্যারিয়ার ভাবনা
  5. খেলা
  6. জাতীয়
  7. টেক নিউজ
  8. দেশের খবর
  9. প্রবাস
  10. ফিচার
  11. বিনোদন
  12. রাজনীতি
  13. লাইফস্টাইল
  14. সম্পাদকীয়
  15. সাফল্য

শিক্ষার্থীর মৃত্যু রামেকে ছাত্র নির্যাতনের ঘটনায় থানায় অভিযোগ রাবি প্রশাসনের

প্রতিবেদক
admin
অক্টোবর ২৩, ২০২২ ৮:৪২ পূর্বাহ্ণ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ছাত্র গোলাম মোস্তফা শাহরিয়ারের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ছাত্র নির্যাতনের ঘটনায় সংশ্লিষ্টদের বিচার চেয়ে থানায় অভিযোগ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

শনিবার (২২ অক্টোবর) বিকেল ৫টার দিকে নগরীর রাজপাড়া থানায় এ অভিযোগপত্র জমা দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক আব্দুস সালাম।

এ ব্যাপারে রেজিস্ট্রার আব্দুস সালাম জাগো নিউজকে বলেন, শাহরিয়ারের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে রামেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চেয়ে থানায় মামলা দায়েরের জন্য লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। কেননা সেদিন শিক্ষার্থীরা আহত ছাত্রকে হাসপাতালে নিলেও সে যথাযথ চিকিৎসা পায়নি। তাই তারা ক্ষুব্ধ হয়ে প্রতিবাদ করে। কিন্তু হাসপাতালের স্টাফ ও সংশ্লিষ্টরা তাদের অবরুদ্ধ করলে ঝামেলা বাঁধায়। এসময় একাধিক শিক্ষার্থী আহত হন।

লিখিত অভিযোগে বলা হয়েছে, গত ১৯ অক্টোবর রাত সাড়ে ৮টায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষার্থী এস. জে. এম শাহরিয়ার শহীদ হাবিবুর রহমান হলে উপরতলা থেকে পড়ে গুরুতর আহত হন। এ অবস্থায় তাকে জরুরি চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। কিন্তু সেখানে কোনো প্রকার চিকিৎসা দেওয়া হয়নি এবং তাকে আইসিইউতে না নিয়ে ৮ নম্বর ওয়ার্ডে পাঠানো হয়। ওয়ার্ডে নিয়ে শিক্ষার্থীরা অনেক ডাকাডাকির করলেও দায়িত্বরত চিকিৎসক ও নার্স আসতে দেরি করেন। ৮ নম্বর ওয়ার্ডে নেওয়ার পর চিকিৎসায় বিলম্বের কারণে শাহরিয়ারের মৃত্যু হয়। সময়মতো চিকিৎসা পেলে সে হয়তো বেঁচে যেতো।

এতে আরও বলা হয়েছে, ডাক্তার/নার্সদের সঠিক সময়ে চিকিৎসা না করা এবং তাদের দায়িত্বে ও কর্তব্যে অবহেলাজনিত কারণে শাহরিয়ারের মৃত্যু ঘটায় রাবি শিক্ষার্থীরা স্বাভাবিকভাবেই আবেগপ্রবণ হয়ে পড়ে। এ অবস্থায় তারা শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিবাদ ও ক্ষোভ প্রকাশ করতে থাকে। সেসময় ৮ নম্বর ওয়ার্ড ও তার আশেপাশের ওয়ার্ডের কর্তব্যরত চিকিৎসক/ ইন্টানি/ নার্স/ব্রাদার/আনসার ও তাদের সহযোগীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের শোকার্ত শিক্ষার্থীদের অবরুদ্ধ করে অকথ্য গালিগালাজ এবং আকস্মিকভাবে হামলা চালায়। এসময় লাঠি ও শল্যচিকিৎসায় ব্যবহৃত ধারালো যন্ত্রসামগ্রী দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের আনুমানিক শতাধিক শিক্ষার্থীকে গুরুতরভাবে আহত করা হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, হামলার শিকার শিক্ষার্থীদের অনেকে এখন রাজশাহীর বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। তাদের নিরাপত্তা ও ন্যায়বিচারের জন্য মামলা এজহারভুক্ত করতে লিখিত অভিযোগে অনুরোধ করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এ ব্যাপারে রাজপাড়া থানার তদন্ত কর্মকর্তা মাহেদুল ইসলাম জানান, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে একটি অভিযোগপত্র পেয়েছি। এটা এজাহারভুক্ত হবে কি না, ঊর্ধ্বতন কর্মকতাদের সাথে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

সর্বশেষ - দেশের খবর