logo
শনিবার , ৮ অক্টোবর ২০২২ | ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. ক্যারিয়ার ভাবনা
  5. খেলা
  6. জাতীয়
  7. টেক নিউজ
  8. দেশের খবর
  9. প্রবাস
  10. ফিচার
  11. বিনোদন
  12. রাজনীতি
  13. লাইফস্টাইল
  14. সম্পাদকীয়
  15. সাফল্য

‘নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ৩০০ দলীয় ক্যাডার নিয়োগ দিয়েছিল বিএনপি’

প্রতিবেদক
admin
অক্টোবর ৮, ২০২২ ২:১৮ অপরাহ্ণ

২০০৭ সালের ২২ জানুয়ারির ‘সাজানো নির্বাচনকে’ কেন্দ্র করে জরুরিভাবে উপজেলা নির্বাচনি কর্মকর্তা নিয়োগের নামে বিএনপি-জামায়াত সরকার ৩০০ দলীয় ক্যাডারকে চাকরি দিয়েছিল। এমন অভিযোগ উল্লেখ করে একটি ভিডিও তথ্যচিত্র প্রকাশ করেছে বর্তমান ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

শুক্রবার (৭ অক্টোবর) রাতে সেই ভিডিওচিত্রটি নিজের ফেসবুক পেজে প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্য প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

ভিডিও চিত্রে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের ইতিহাসে সরকারি কর্ম কমিশনকে (পিএসসি) ব্যবহার করে এত দ্রুত কোনও নিয়োগ কখনও হয়নি। কোনও পরীক্ষা ছাড়াই সরাসরি তালিকার মাধ্যমে এই নিয়োগ দিয়ে পাবলিক সার্ভিস কমিশন এবং সরকারি চাকরিতে নিয়োগপ্রক্রিয়াকে কলঙ্কিত করে খালেদা জিয়ার সরকার।

‘হাওয়া ভবন’ থেকে তারেক রহমানের সরাসরি নির্দেশে ২০০৬ সালের ৪ সেপ্টেম্বর পিএসসির মাধ্যমে এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে ২৬ ফেব্রুয়ারিতেই নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয় উল্লেখ করে এতে আরও বলা হয়, ‘তবে ১/১১ এর পটভূমি পরিবর্তনের পর, ১৩ জানুয়ারি ২০০৭ সালের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টারা এ বিষয়ে আলোচনা করেন।’

আরও বলা হয়, ‘২০০৭ সালের ১৮ জানুয়ারির প্রথম আলো পত্রিকায় এই বিষয়ে বিস্তারিত সংবাদ প্রকাশ হয়। জানা যায়, নিজেদের মতো করে নির্বাচন আয়োজনের লক্ষ্যে নিয়োগ দিয়েই এই ৩০০ জন ছাত্রদল নেতাকে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা পদে বসানো হয় এদের। এতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ছাত্রদলের ৬০ জন নেতাকর্মী, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের ১০ জন এবং রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ১২ জন ছাত্রদল নেতাকর্মীকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল।’

এছাড়াও বগুড়ার ১৫ জন ছাত্রদল নেতাকেও এই পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল বলে ভিডিওচিত্রে উল্লেখ করা হয়।

প্রসঙ্গত, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর এই ৩০০ জনের বিষয়ে তদন্ত করে ৮৫ জনকে চিহ্নিত করে চাকরি থেকে বাদ দেওয়া হয়। পরে তারা আদালতের শরণাপন্ন হওয়ার পর দফায় দফায় শুনানি শেষে চূড়ান্তভাবে তাদের বাদ দেওয়া হয়। গত মাসে এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপনও জারি করা হয়।

সর্বশেষ - দেশের খবর

আপনার জন্য নির্বাচিত